একসময় মেয়েরা ছেলেদের তুলনায় কাজে কর্মে অনেক পিছিয়ে ছিল তাদের সামনে ছিল সমাজের নানা রকম বাধা বিপত্তি। কিন্তু আজ তারা নানা রকম কাজ কর্ম করতেছে। মেয়েরা উদ্যোগতা হয়ে বিভিন্ন রকম ব্যবসা বাণিজ্য গড়ে তুলছে।

মেয়েদের জন্য লাভজনক ৮ টি ব্যবসার আইডিয়া
মেয়েদের জন্য লাভজনক ৮ টি ব্যবসার আইডিয়া 



 নিজেরা কাজ করতেছে এবং অন্যদের কাজ করার সুযোগ করে দিয়েছে। আপনি মেয়ে হয়ে থাকেন যদি উদ্যোগতা হয়ে ব্যবসা শুরু করতে চান নিচে বলা ব্যবসা গুলো অল্প পুঁজিতে শুরু করতে পারেন ।


১. সেলাই বা দর্জি ব্যবসা


অল্প টাকা বিনিয়োগ করে সেলাই বা দর্জি ব্যবসা শুরু করা যায়। জামা কাপড় সেলাই অর্ডার নিয়ে ঘরে বসে সেলাই করতে পারবেন। বর্তমানে এটি একটি লাভজনক ব্যবসা।

 এই ব্যবসা শুরু করার জন্য আপনার প্রয়োজন একটি সেলাই মেশিন, ফিতা, কার্চি, স্কেল, একটি ইস্ত্রী মেশিন । আপনি ছেলে মেয়ে উভয়ই জামা কাপড় সেলাই করতে পারবেন। ব্যবসা শুরু করার আগে আপনার প্রশিক্ষণ নিতে হবে।

আপনি যদি ভালো সেলাই কাজ পারেন তাহলে আপনি অন্য মহিলা বা পুরুষ দের সেলাই কাজ শিখিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। 

আরো পড়ুন 


২. হস্ত শিল্প 


আমাদের তালিকা ২ নাম্বারে আছে হস্ত শিল্প। বর্তমান হস্ত শিল্পের তৈরি জিনিসের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে দেশ ও দেশের বাইরে। নিজের সৃজনশীলতাকে কাজে লাগিয়ে বাঁশ, কাঠ, মাটি দিয়ে নানা রকম জিনিস তৈরি করা। 

এই সব জিনিস বিশেষ তৈরি হয় গ্রামের। গ্রামের অল্প টাকায় এত জিনিস তৈরি করে নিয়ে পরে আপনি অনলাইন বা বিদেশে রপ্তানি করতে পারবেন। বাংলাদেশের তৈরি জিনিসের বিদেশে ব্যাপক চাহিদা রয়েছে।


৩. ইউটিউবে ভিডিও তৈরি


অনেক নারী ইউটিউব চ্যানেল খুলে ঘরে বসে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করতেছে। আপনি চাইলে ইউটিউবিং নিজের ক্যারিয়ার হিসেবে নিতে পারবেন। একটি ইউটিউব চ্যানেল খুলে সেখানে আপনি নানা রকম

খাবার তৈরি, প্রডাক্ট রিভিউ, ব্লগিং ভিডিও, স্বাস্থ্য বিষয়ক বিভিন্ন রকম টিপস এন্ড ট্রিকস শেয়ার করতে পারবেন। আপনার যদি কোন নিজস্ব পণ্য থাকে তাহলে আপনি ইউটিউব বিক্রি করতে পারবেন। 

৪. কাস্টমাইজ গিফট বিক্রি 


নিজের সৃজনশীলতাকে কাজে লাগিয়ে ঘরে বসে তৈরি করে ফেলুন নানা রকম উপহার সামগ্রি। আপনি চাইলে ঘরে বসে অনলাইনে কাস্টমাইজ গিফট বিক্রি করতে পারবেন। 

আপনি যদি অনলাইনে বিক্রি করতে চান তাহলে আপনার দরকার হবে ফেসবুক পেজ বা ওয়েবসাইটে বিক্রি করতে পারেন। ছোট থেকে বড় অনেক কাস্টমার পেয়ে যাবেন। 

৫. পার্লার ব্যবসা 


মেয়েদের জন্য পার্লার ব্যবসা একটি জনপ্রিয় ব্যবসা। এই ব্যবসা আপনি ঘরের মধ্যে ও করতে পারবেন আবার নির্দিষ্ট একটি জায়গায় দোকান দিয়ে ও করতে পারেন ।

এই ব্যবসা আপনি অল্প পুঁজিতে শুরু করে মাসে অনেক টাকা ইনকাম করতে পারবেন। আপনার হাতের কাজ যদি অন্যদের তুলনায় ভালো হয় তাহলে কাস্টমারের অভাব হবে না। 


৬. খাবার তৈরি ব্যবসা 


আপনি যদি কোন একটি নির্দিষ্ট খাবার যদি ভালো রান্না করতে পারেন। তা আপনি রেস্টুরেন্ট বা অনলাইনে বিক্রি করে পারবেন। বর্তমানে অনেক নারী উদ্যোগতা এই ব্যবসা সাথে জড়িত এবং অল্প পুঁজিতে শুরু করে অনেক টাকা ইনকাম করতেছে। 

৭. ফ্রিল্যান্সিং 


ফ্রিল্যান্সিং হচ্ছে একটি মুক্ত পেশা বা চাকরি। এখানে আপনি যখন ইচ্ছা তখন কাজ করতে পারবেন। ঘরে বসে ফ্রিল্যান্সিং করে বর্তমানে মাসে লক্ষ টাকা ইনকাম করা সম্ভব। ফ্রিল্যান্সিং করার জন্য আপনাকে নির্দিষ্ট বিষয়ের উপর ভালো দক্ষতা অর্জন করতে হবে।

আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং উপর ভালো দক্ষতা অর্জন করতে পারেন তাহলে আপনি একটি কোর্স তৈরি করে তা বিক্রি করতে পারবেন। কোর্স বিক্রি করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন আবার অনেক বেকার ছেলে মেয়ে ফ্রিল্যান্সিং শিখে তারা ও টাকা ইনকাম করতে পারবে ।

আরো পড়ুন 

৮. টি-শার্ট ডিজাইন 


আপনি যদি ভালো গ্রাফিক্স ডিজাইন পরেন। তাহলে আপনি আপনার মেধা সৃজনশীলতা কাজে লাগিয়ে কম্পিউটারে নৃত্য নতুন ইউনিক টি-শার্ট ডিজাইন করে ভালো টাকা ইনকাম করতে পারেন ।

টি-শার্ট ডিজাইন বিক্রি করার জন্য সব থেকে জনপ্রিয় হচ্ছে March by amazon account খুলে সেটা আপনি ডিজাইন করা টি-শার্ট গুলো বিক্রি করতে পারেন। এই ব্যবসা কোন রকম পুঁজি বা বিনিয়োগ করা লাগে না। 


Post a Comment

নবীনতর পূর্বতন