ফেসবুক জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম। ছোট বড় প্রায় সবাই ফেসবুক ব্যবহার করে। ফেসবুক মার্কেটিং বা ব্যবসা করা অনেকে সহজ। আজকে আলোচনা করব ফেসবুক মার্কেটিং কি? কিভাবে ফেসবুক মার্কেটিং করবেন। ফেসবুক মার্কেটিং টিপস 

ফেসবুক মার্কেটিং কি? কিভাবে ফেসবুক মার্কেটিং করবেন
ফেসবুক মার্কেটিং কি? কিভাবে ফেসবুক মার্কেটিং করবেন 


ফেসবুক মার্কেটিং কি 


নরমাল মার্কেটিং করতে গেলে আপনাকে প্রচারের জন্য। আপনাকে পোস্টার ছাপাতে হবে। মাইকিং করে প্রচার করতে হবে মানুষকে লিফলেট বিলি আপনার ব্যবসা বা পণ্য প্রচার প্রচারনা করতে হবে এর জন্য অনেক টাকা অনেক সময়ে দরকার হয়। 

কিন্তু এই কাজ টা যদি আপনি ফেসবুকে করেন। তাহলে আপনার টাকা অনেক কম লাগবে। আপনাকে মাইকিং, পোস্টার লিফলেট ইত্যাদি দিয়ে প্রচার করতে হবে না। ফেসবুক মার্কেটিং করে সময় ও প্ররিশ্রম অনেক কম হবে। 

ঘরে বসে ফেসবুক মার্কেটিং করা যায়। ফেসবুক মার্কেটিং করলে সহজে টার্গেট অডিয়েন্সের কাছে পৌঁছাতে পারবেন। সারা পৃথিবীর মানুষের কাছে আপনার পণ্য বা সেবার প্রচার করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে ফেসবুক বিজ্ঞাপন দিতে হবে।

ফেসবুক মার্কেটিং করতে হলে আপনাকে কোন রাস্তার মোড়ে দোকান দিতে হবে না। ঘর ভাড়া লাগবে না। আপনি শহরে বা গ্রামের ব্যবসা করতে পারবেন ঘরে বসে। অল্প পুঁজিতে ফেসবুক মার্কেটিং শুরু করা যায়।

আরো পড়ুন 



কিভাবে ফেসবুক মার্কেটিং করবেন 


ফেসবুক মার্কেটিং করতে গেলে প্রথমে দরকার হবে একটি 
  • ফেসবুক অ্যাকাউন্ট।
  • বিজনেস পেজ। 
  • ফেসবুক গ্রুপ। 

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট 


ফেসবুকে মার্কেটিং বা ব্যবসা করতে গেলে। আপনার একটি পার্সোনাল ফেসবুক অ্যাকাউন্টের দরকার হবে। কারণ আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট দিয়ে ফেসবুক পেজ ও গ্রুপ খুলবেন। আপনার অ্যাকাউন্ট দিয়ে অন্য কোন পেজ বা গ্রুপে আপনার ফেজ শেয়ার করতে হবে। 

বিজনেস পেজ 


ফেসবুক মার্কেটিং করতে গেলে আপনাকে একটি সঠিক নিয়মে বিজনেস পেজ খুলতে হবে। পেজ ক্রিয়েট করার সময় একটি সহজ নাম সুন্দর লোখো পেজ ডেসক্রিশন অনেক সুন্দর ও সহজ ভাবে দিবেন। সেই পেজে আপনার পণ্যের সুন্দর একটা ছবি বা ভিডিও পোষ্ট করবেন। 

এবং পণ্য সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করবেন। বিস্তারিত বলে এতে মানুষের আপনার পণ্য প্রতি বেশি আগ্রহ দেখাবে। আর মাঝে মধ্যে কিছু ইনফরমেশন শেয়ার করবে এতে দেখবেন আপনার পেজ অনেক জনপ্রিয় হয়ে যাবে। মানুষের এক্টিভ বেড়ে যাবে। 

ফেসবুক গ্রুপ 


ফেসবুক পেজের পাশাপাশি একটি ফেসবুক গ্রুপ খুলবেন। ফেসবুক গ্রুপ টার নাম আপনার পেজের নাম অনুসারে দিবেন। গ্রুপে অনেক মানুষ থাকে তাই এখানে মার্কেটিং করা অনেক সহজ। 

গ্রুপে আপনি ও গ্রুপে থাকা অন্যান্য মানুষরা বিভিন্ন ধরনের পোষ্ট করে এতে সহজে তাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারবেন। 

আরো পড়ুন 


ফেসবুক মার্কেটিং প্রকার ভেদ 


১. অরগানিক মার্কেটিং 
২. পেইড মার্কেটিং 

অরগানিক মার্কেটিং 


অরগানিক মার্কেটিং বা ফ্রি ফেসবুক মার্কেটিং একই কথা। অরগানিক মার্কেটিং করতে হলে আপনাকে কোন টাকা খরচ করতে হবে না। আপনার পেজে পোস্ট করবেন এবং সেই পোস্টে বিভিন্ন গ্রুপে শেয়ার করবেন।

 এত মানুষ লাইক, কমেন্ট, শেয়ার করবে। এবং আস্তে আস্তে পোস্টের রিচ বাড়বে এত আরো বেশি মানুষ আপনার পোষ্ট দেখতে পারবে। 

পেইড মার্কেটিং 


পেইড মার্কেটিং করতে হলে আপনাকে টাকা খরচ করতে হবে। ফ্রী মার্কেটিং করে আপনি ৯ - ১০% মানুষের কাছে পৌঁছাতে পারবেন। আর পেইড মার্কেটিং করে আপনি বিভিন্ন বয়সের মানুষ। 

নির্দিষ্ট লোকেশন, কত বছর বয়সে মানুষ দেখবে তা সব আপনি ঠিক করে দিতে পারবেন। ফেসবুক পেইড মার্কেটিং কে বেশি গুরুত্ব দেয়। আপনার যদি কোন ওয়েবসাইট থেকে থাকে তাহলে ফেসবুক পিক্সেলের ব্যবহার করে। 

আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিটর দের আপনার অ্যাড দেখাতে পারবেন। আপনি চাইলে বিভিন্ন দেশে অ্যাড দেখাতে পারবেন। 

ফেসবুক মার্কেটিং টিপস 


ফেসবুকে দ্রুত সাফল্য পেতে হলে কিছু মার্কেটিং টিপস ব্যবহার করতে হবে। 


আপনি যে প্রডাক্ট ছবি দিবেন তা ভালো একটা ছবি তুলুন। এবং সেই প্রডাক্ট সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য দিতে হবে কাস্টমারকে।


পণ্যের ভালো একটি ভিডিও আপলোড করুন। আপনি প্রডাক্টের ছবি তোলার সময় ভিডিও করে ফেলুন। এবং ভিডিও টা ভালো করে এডিটিং করুন। মানুষ প্রডাক্টের ভিডিও দেখতে বেশি পছন্দ করে।


কাস্টমার কে পোষ্টের মাধ্যমে জিজ্ঞেস করুন তাদের কি রকম প্রডাক্ট দরকার। আপনার প্রডাক্ট সম্পর্কে ওদের কে বলুন। তাহলে তারা বেশি আগ্রহী হবে।


মাঝে মধ্যে পেজে ইনফরমেশন মূলক পোস্ট করুন। যাতে সেখান থেকে মানুষ কিছু শিখতে পারে।

Post a Comment

নবীনতর পূর্বতন